মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০১:৩১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আড়াইহাজারে ট্রাক চাপায় পৌরসভার ইলেকট্রিশিয়ান নিহত আড়াইহাজারে ঘর থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ফতুল্লায় তিন বছরের শিশু অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতার ২ বন্দরে মিশু ডকইয়ার্ডের শ্রমিক নিহত ফতুল্লায় সৌদি প্রবাসীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক ও টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ আ: রহমানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশে মিছিল নিয়ে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের যোগদান মিল্টন সমাদ্দারের সব অপকর্ম তদন্ত করে বের করা হবে, হারুন শ্রমিক-মালিক সুসম্পর্ক রেখে উৎপাদন বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর তৃতীয় শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, স্বীকারোক্তিতে রোমহর্ষক বর্ণনা ধর্ষকের অয়ন ওসমানের ছবি ব্যবহার করে কুতুবপুরে রায়হানের অপরাধ জগত

জালকুড়ীতে প্রকাশ্যে অটোরিকশা থেকে ইদু মোল্লার চাঁদাবাজি

সংবাদ নারায়ণগঞ্জ:- পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজীর অভিযোগে জেলার বিভিন্ন সড়কের বহু সংখ্যক পরিবহন চাঁদাবাজ জেলা আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হলেও ব্যাটারি চালিত অটো রিকশা (ইজিবাইক) থেকে কোনোভাবেই বন্ধ হচ্ছে না চাঁদাবাজি। চাঁদাবাজরা থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে দিব্যি চাঁদাবাজরা করছে চাঁদাবাজি। র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব) সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা কিছু চাঁদাবাজকে গ্রেপ্তার করলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকছে চাঁদাবাজির মূল হোতারা।

অপরদিকে বহুদিন ধরে জালকুড়ী থেকে পাগলা চলাচল রত অটো রিকশা থেকে প্রকাশ্যেই চাঁদা উত্তোলন করছে ইদু মিয়া। এ যেন দেখেও না দেখার ভান করছে প্রশাসন। জালকুড়ী থেকে পাগলা চলাচল রত প্রায় ৩০০ টি অটো রিস্কা রয়েছে । প্রতিদিন প্রত্যেকটি অটো রিকশা থেকে প্রতিদিন ৩০ টাকা করে চাঁদা উত্তোলন করা হচ্ছে। আর এই চাঁদাবাজির নেতৃত্বে রয়েছেন জালকুড়ি এলাকা হেলাল, মোটা ফারুক, খালপাড়া বাড়ি এলাকার সাইদুর।

এই চাঁদাবাজদের বিষয়ে জেলা আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভুমিকা নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্নের জন্ম নিয়েছে।জেলা আইন- শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিরপেক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন কেউ কেউ। এদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কেউ মুখ না খুললেও তাদেরকে গ্রেফতারের দাবী করেছেন অটোরিকশা ও ইজিবাইক চালকরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় অটো রিকশা মধ্যে বসে ইদু মোল্লা প্রতিটি অটো রিকশা থেকে ৩০ টাকা করে উত্তোলন করছে। টাকা উত্তোলনের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন মসজিদের জন্য টাকা উত্তোলন। কত টাকা উত্তোলন করা হচ্ছে জানতে চাইলে এবং উল্লাহ বলেন ইদু বলেন ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা। যা মাসে দাঁড়ায় ১ লক্ষ২০ হাজার টাকা। বছরে ১৪ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা।

সূত্রটির দাবী, ইজিবাইক ও অটোরিক্সার চাঁদাবাজি থেকে বছর শেষে অর্ধ কোটি টাকারও বেশী যে টাকা বা চাঁদা উত্তোলন করছে তারা। একটি অংশ পায় প্রশাসনের দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তা ও বিশেষ পেশায় নিয়োজিত কতিপয় ব্যক্তি সহ হোমড়া- চোমরা পাতি নেতা,লাইন ম্যান,ছিচকে সন্ত্রাসী।

ইজিবাইক, অটো রিক্সা চালক ও মালিকদের অভিযোগ, চাঁদাবাজরা বসে থেকে আমাদের কষ্টে অর্জিত টাকা জোর করে আদায় করছে। আমরা নিরুপায় তাই প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD