মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০১:৪৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আড়াইহাজারে ট্রাক চাপায় পৌরসভার ইলেকট্রিশিয়ান নিহত আড়াইহাজারে ঘর থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ফতুল্লায় তিন বছরের শিশু অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতার ২ বন্দরে মিশু ডকইয়ার্ডের শ্রমিক নিহত ফতুল্লায় সৌদি প্রবাসীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক ও টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ আ: রহমানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশে মিছিল নিয়ে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের যোগদান মিল্টন সমাদ্দারের সব অপকর্ম তদন্ত করে বের করা হবে, হারুন শ্রমিক-মালিক সুসম্পর্ক রেখে উৎপাদন বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর তৃতীয় শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, স্বীকারোক্তিতে রোমহর্ষক বর্ণনা ধর্ষকের অয়ন ওসমানের ছবি ব্যবহার করে কুতুবপুরে রায়হানের অপরাধ জগত

বিএনপি এখন দুই গ্রুপে বিভক্ত, শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, আমার মনে হয়, মার্চ-এপ্রিল-মে-জুন এই সময়টায় যারা দেশের ভালো চান তাদের সকলের সচেতন হওয়ার দরকার আছে। কারণ যে জিনিসটা তারা করার চেষ্টা করছে সেটি করলো বাংলাদেশ আফগানিস্তানের চেয়েও ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হবে। সব দলেই ভালো লোক আছে, বিএনপির মধ্যেও ভালো লোক আছে; আমার মনে হয় এই বিষয়টা তাদেরও দেখা উচিত।

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সদর উপজেলা সহকারী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলীর কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি একথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, ‘তাদের সাজানো তত্বাবাধায়ক সরকার ছিলো ২০০৮ এ এবং তখনকার সেনা প্রধান থেকে শুরু করে সবই তাদের ছিলো। সেখানেও কিন্তু তারা মাত্র ২৯টি সিট পেয়েছিলো। ইতিমধ্যে দেশে বেশ কিছু জঙ্গি ধরা পরেছে। আর এ বিষয়ে বিএনপির টপ পর্যায়ের সব নেতা জানবে, এটা আমি বিশ্বাস করি না। কিন্তু এমন কিছু ঘটনা সৃষ্টি করা হবে, যে ঘটনা গুলো ঘটলে একটি রাষ্ট্র; ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হয়। অর্থাৎ প্রচুর লাশ চাই, সেটা আওয়ামী লীগের হোক, সাধারণ মানুষের হোক কিনবা বিএনপিরই হোক। এরকম ভাবে নির্বাচনটাকে বন্ধ করার একটি অপচেষ্টা করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, আমার যেতোটুকু মনে হয়, বিএনপি নির্বাচনের ক্ষেত্রে দুটো ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে। একটা গ্রুপ হচ্ছে আম্মা গ্রুপ, যারা খালেদা জিয়াকে বেস করে বিএনপির রাজনীতি করছেন। আরেকটা হচ্ছে লন্ডনে থাকা তারেক জিয়া, তার ফলোয়ার্স। স্বাভাবিক ভাবেই তারেক জিয়া চাচ্ছে নির্বাচনটা যাতে না হয়। কারণ উনি ১৫ই আগস্টের গ্রেনেড হামলাসহ বেশ কয়েকটি মামলায় অভিযুক্ত। তারা যদি নির্বাচন করে তাহলে ১৫১ সিট তারা পাবে না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিফাত বিন ফেরদৌস, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. শওকত আলী, এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান, ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন, আলীর টেক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন, কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু, গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজর আলী প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD