সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:২৬ পূর্বাহ্ন

মাইক্রো ফাইভার বন্ধের বিষয়ে সমাধানের জন্য সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন-পলাশ

সংবাদ নারায়ণগঞ্জঃ- প্রেসক্লাবের সামনে মাইক্রো ফাইভার লিঃ এর শ্রমিকদের মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় শ্রমিকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম উন্নয়ন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক এবং ইউনাইটেড ফেডারেশন অফ গার্মেন্টস ওয়ার্কস এর কেন্দ্রীয় সভাপতি আলহাজ্ব কাওছার আহম্মেদ পলাশ জেলা প্রশাসন ও গোয়েন্দাদের এ বিষয়টি সুষ্ঠ ভাবে ক্ষতিয়ে দেখার আহবান জানিয়ে বলেছেন যদি আমার শ্রমিক অন্ন্যায় করে তাহলে যে শাস্তি দেবেন তা মাথা পেতে নেবো। কিন্তু বিকেএমইএ’র সহ সভাপতি মোঃ হাতেম কে নয়।

(১১ অক্টোবর) রবিবার সকাল ১১ টায় মাইক্রো ফাইভার লিঃ এর শ্রমিকদের মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।

শ্রমিক নেতা কাউছার আহম্মেদ পলাশ আরো বলেছেন, মাইক্রো ফাইভার বন্ধের বিষয়ে সমাস্যার সমাধানের জন্য বিকেএমইএ’র সহ সভাপতি মোঃ হাতেম কে নয়, প্রয়োজন সভাপতি এ কে এম সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপ। এ দাবী জানিয়ে তিনি বলেন বিগত দিনে নারায়নগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ এ কে এম সেলিম ওসমানের হস্তক্ষেপে নারায়নগঞ্জে অনেক সমস্যার সমাধান হয়েছে। সেলিম ওসমান কে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার মাধ্যমে যে সমস্ত সমস্যা সমাধান হয়েছে তাতে করে নারায়ণগঞ্জের মালিক ও শ্রমিকরা খুশি হয়েছেন, কিন্তুু আপনার সহ সভাপতি মোঃ হাতেমের মাধ্যমে শ্রমিক মালিকের কোনো সমস্যা সমাধান হয়নি, এমন ইতিহাসের নজির নেই। তার মাধ্যমে শ্রমিক জুলুম নির্যাতনের স্বীকার হয়েছে বার বার। তাই আপনাকে অনুরোধ করছি এ সমস্যা সমাধানে হাতেম কে সড়িয়ে আপনি নিজে শ্রমিকদের সমস্যা সমাধান করুন।

৪৫ টাকার সূতার ববিন ভাঙ্গার ঘটনা নিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে অরাজকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সমাধানের জন্য মালিক ও হাতেম মিয়ার কাছে গিয়েছিলাম তারা বলছিলেন শনিবারের মধ্যে সমাধান হবে। তার পর দেখলাম সমস্যার সমাধান না করে কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তিনি মালিক কে প্রশ্ন করে বলেন, ৪৫ টাকার সূতার ববিন নিয়ে যে কাহিনি তৈরি করেছেন আপনার ষ্টাফদের দিয়ে ঘটনা সৃষ্টি করে ৫শ টাকা জরিমানা করেছেন এটা কিসের আলামত, এ কারনে জরিমানা করে শ্রমিকদের মধ্যে অরাজকতা সৃষ্টি করেছেন।

কারণ বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে যারা দেশে (জামাত ও বিএনপি) ধর্ষনের ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে অরাজকতা সৃষ্টি করেছে, এটাকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য শ্রমিকদের উস্কানি দিয়ে রাজপথে নামানোর জন্য স্বরযন্ত্রের অংশ হিসেবে কারখানায় আপনার ষ্টাফদের এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে যদি শ্রমিকদের সমস্যার সমাধান না করেন তাহলে ৭৪ সংগঠনের শ্রমিকদের নিয়ে আবারও কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবো।

এ সময় মাইক্রো ফাইভারের শ্রমিক জিয়াউদ্দিন এর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয়  শ্রমিকলীগের ফতুল্লা আঞ্চলিক শাখার সাধারণ সম্পাদক এস এম হুমায়ুন কবির, উইনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টস ওয়ার্কসের জেলা শাখার সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সেন্টু, কার্যকরি সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন রাজু, শ্রমিকনেতা নুরুল ইসলাম, ইমান আলী, মোঃ শামীম, মোসাম্মৎ পারুল ও খলিল প্রমুখ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD