রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:২৮ পূর্বাহ্ন

থানায় অভিযোগ করায় যুবককে আবারও মারধর

সংবাদ নারায়ণগঞ্জঃ- ফতুল্লার পাগলায় মারধরের শিকার হয়ে থানায় অভিযোগ করায় ফেরদৌস নামের এক যুবককে ফের মারধর করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
(৬ এপ্রিল) রাত ৯ টায় পাগলা এস.এম সুপার মার্কেটের সামনে এঘটনা ঘটে। সন্ত্রাসীদের এমন কান্ডে আতংকে রয়েছে অভিযোগকারী ভুক্তভোগী ফেরদৌস।

সরেজমিন ঘুরে ও ভুক্তভোগী সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, দীর্ঘ দিন যাবৎ পাগলা এলাকায় ফুটপাতে ভ্যানের মধ্যে গেঞ্জির ব্যবসা করছি। কিন্তু কিছুদিন যাবত আমির, সম্রাট, বিশু ও সুমান বিভিন্ন সময়ে আমার নিকট এসে চাঁদা দাবী করে। এরপর চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় আমাকে ব্যবসা করতে দিবেনা এবং প্রাণ নাশের হুমকি সহ মারধর করে। আমার গাড়িটিসহ গাড়িতে থাকা অনুমান পঁচিশহাজার টাকার গেঞ্জি নিয়া যায়।

 

এ বিষয়টি নিয়ে ফেরদৌস বাদী হয়ে (৪ এপ্রিল) ফতুল্লা মডেল থানায় আমির (৩৫) পিতা- আলেক, ২। সম্রাট (৩৫), পিতা- সাহাবউদ্দিন, ৩। বিশু (৩৩),পিতা-অজ্ঞাত, ৪। সুমান (৩৪), পিতা- অজ্ঞাত, সর্ব সাং- পাগলা পপুলার ষ্টুডিও এদের নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

 

 

ভুক্তভোগী ফেরদৌস জানান, অভিযোগের বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করতে ফতুল্লা মডেল থানার এস আই রাজ্জাক ঘটনাস্থলে আসেন। তাদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগের বিষয়টি জানতে পারে। এরি জের ধরে আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার রাত ৯টার সময় এস.এম সুপার মার্কেটের সমানে এসে আবারও আমকে মারধরসহ আমাকে গুম করার হুমকি প্রধান করে আমির, সম্রাট, বিশু, সুমান।

 

ফেরদৌস আরও জানান, পুলিশ আমাদেরকে কি করবে। এসপি কাছে জানালেও আমাদেরকে কিছুই করতে পারবেনা। পুলিশ পকেটে নিয়ে ঘুরি। এখন থানায় অভিযোগ করেও আমি তাদের ভয়ে রয়েছি। যে কোন সময় আমার বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে।

এ বিষয়ে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকতা এস আই আব্দুল রাজ্জাকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগের তদন্ত করেছি। এই বিষয়টি ব্যাপারে এলাকার লোক জন দায়িত্ব নিয়েছে। আবারও মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এমন ঘটনা যদি তারা আবারও করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মারধরের বিষয়ে জানতে আমিরের কাছে ফোন দিলে তিনি মারথরের বিষয়টি অস্বীকার করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD