রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০০ পূর্বাহ্ন

আড়াইহাজারে পাওনা টাকা চাওয়ায় ফিল্মি স্টাইলে অপহরণ, হাত-পা বেঁধে নির্যাতন

সংবাদ নারায়ণগঞ্জ:- নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় এলাকায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ফিল্মি স্টাইলে মোহাম্মদ ইব্রাহিম নামে এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার দুপুরে উপজেলার বাজারের হাজী দায়ানের ৬ তলা ভবনের নিচতলা থেকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় মোহাম্মদ ইব্রাহিমকে উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

অপহৃত মোহাম্মদ ইব্রাহিম উপজেলার হাইজাদি ইউনিয়নের ইলমদী এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে। তিনি পেশায় চাল ব্যবসায়ী।

অপহৃতের বরাত দিয়ে আড়াইহাজার থানার পরিদর্শক (ভারপ্রাপ্ত ওসি) আনিছুর রহমান মোল্লা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে ১টার দিকে চাল কেনার জন্য উপজেলার বাজারে আসেন ইব্রাহিম। ওই সময় একই গ্রামের মোজ্জাম্মেলের ছেলে ব্যবসায়ী এনামুল ফোন দিয়ে ডেকে নেন। পরে তাকে ফিল্মি স্টাইলে অপহরণ করে উপজেলা শহরের হাজী দায়ানের ৬ তলা ভবনের নিচতলায় হাত-পা বেঁধে ফেলে রাখা হয়। এর আগে মুখ বেঁধে তাকে ব্যাপক মারধরও করা হয়।

তিনি আরো জানান, ইব্রাহিমের খোঁজ না পেয়ে স্বজনরা আড়াইহাজার থানায় জিডি করেন। এরপর থেকে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ইব্রাহিমকে উদ্ধারে অভিযান শুরু করে পুলিশ।

এরই মধ্যে সকালে কান্নার শব্দ পেয়ে ওই ভবনের লোকজন কান্নার উৎস খুঁজতে গিয়ে ইব্রাহিমকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ইব্রাহিমের হাত-পা বেঁধে রাখায় রক্ত জমে গিয়েছে। এতে সে হাত-পা নাড়াচাড়া করতে পারছেন না। এছাড়া শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

কেন ইব্রাহিমকে অপহরণ করা হয়েছে? জবাবে পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ব্যবসায়িক লেনদেন নিয়ে এনামুলের কাছে এক লাখ টাকা পাওনা ছিল। ওই টাকা পরিশোধের জন্য চাপ দিচ্ছিলেন ইব্রাহিম। এজন্য ক্ষোভে এনামুল কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে এ কাজ করেছেন। এনামুলকে আটকে অভিযান অব্যাহত আছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD