সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন

সিদ্ধিরগঞ্জে ৬৫০ কেজি মহিষের মাংস ধ্বংস করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

সংবাদ নারায়ণগঞ্জঃ- সিদ্ধিরগঞ্জে ৬৫০ কেজি প্যাকেটজাত ভারতীয় মহিষের মাংস ধ্বংস ও এক ব্যক্তিকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।(২ ফেব্রুয়ারি ২০২০) রোববার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী বিহারী ক্যাম্প এলাকা থেকে একটি কাভার্ডভ্যানে সংরক্ষিত ১০ কেজির ২০টি, ১৮ কেজির ২২টি এবং ২০ কেজির ৩টি মাংসের প্যাকেটে আনুমানিক ৬৫০ কেজি মহিষের মাংস উদ্ধার করে র‌্যাব। এ সময় মাংস পরিবহনে ব্যবহৃত একটি কাভার্ডভ্যান জব্দ করা হয়।

পরবর্তীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান ফারুক ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে আটককৃত সামিরকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। একইসঙ্গে জব্দকৃত মহিষের মাংস ধ্বংস করার নির্দেশ দেন।

র‌্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দিন চৌধুরী জানান, অনুমোদিত মাংস ব্যবসায়ীরা সপ্তাহে ৩ দিন ঢাকার তেজগাঁও হতে প্যাকেটজাত মাংসগুলো নিয়ে এসে নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন রেষ্টুরেন্ট ও স্থানীয় কসাইয়ের কাছে বিক্রি করে। যা হোটেল ও রেষ্টুরেন্টসহ সাধারণ ক্রেতাদের কাছে গরুর মাংস বলে বিক্রি করে।

তিনি আরও জানান, প্যাকেটজাত হিমায়িত মাংসগুলো বিক্রির জন্য আইনানুযায়ী প্রাণিসম্পদ কর্তৃক কোয়ারান্টাইন সার্টিফিকেট তাদের নেই। আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান হিসেবে তারেক ট্রেডার্স ও ইগলুর নাম লেখা থাকলেও সেই কোম্পানির অনূকুলে প্রাণী সম্পদ অধিদফতরের কোয়ারান্টাইন সার্টিফিকেট তারা দেখাতে পারেনি। এছাড়া প্যাকেটজাত মাংস পরিবহনে ফ্রিজিং চেইন রাখার বিধান থাকলেও তা অমান্য করে তারা নন-ফ্রিজিং গাড়িতে নিয়ে আসে। এতে করে মাংসের গুণগতমান নষ্ট হয়ে যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD