রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বিএনপি-জামাতের নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা ফতুল্লায় হান্ড্রেড বাবুর নিয়ন্ত্রণে মাদক ব্যবসা, নীরবতায় থানা পুলিশ প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতায় খালেদা জিয়াকে ২ শর্তে তাকে মুক্তি দিয়েছে, আইনমন্ত্রী ফতুল্লায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মেম্বার গিয়াস উদ্দিন হত্যা মামলার আসামির এক্সেল কামালের ফাঁসি কার্যকর কুতুবপুরে মাদকের বিরুদ্ধে মাঠে নামলে সেন্টু চেয়ারম্যান সাংবাদিক সোহেল’র মায়ের রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া নারায়ণগঞ্জের পৃথক তিনটি স্থানে বিএনপির নেতা কর্মীদের ককটেল বিস্ফোরণ সিদ্ধিরগঞ্জে জাল নোটসহ গ্রেফতার ১ আগামী ৪ ডিসেম্বর থেকে নারায়ণগঞ্জ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ রূপগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজির ৬ যাত্রী আহত

স্ত্রী ও শশুরের প্রতারণার ফাঁদে স্বামী

সংবাদ নারায়ণগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পূর্ব শিহাচর লালখা এলাকায় স্বামীর সঙ্গে প্রতারণা করে কোটি টাকা ও বাড়ি আত্মসাতের মামলায় শ্বশুর মনির হোসেন গ্রেফতার হলেও পলাতক রয়েছে স্ত্রী শামীমা পারভীন শিমু।

এদিকে আবুল খায়ের রনির পূর্ব শিহাচর লালখা এলাকায় ছয় তলা বিশিষ্ট বাড়ি দখল নিতে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে শ্বশুর ও তার স্ত্রী বাড়ির কেয়ারটেকারকে মারধরসহ হত্যার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় বাড়ির কেয়ারটেকার আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে গত ১০ জানুয়ারি ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন, কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার নবী হোসেনের ছেলে মনির হোসেন, মনির হোসেনের মেয়ে শামীমা পারভীন শিমু ও মনির হোসেনের স্ত্রী শাহনাজ বেগম। পরে পুলিশ অভিযুক্ত শ্বশুর মনির হোসেনকে শিবু মার্কেট এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করে।

কেয়ারটেকার আব্দুর রাজ্জাক জানান, আমি আবুল খায়ের রনির লালখা অবস্থিত ছয়তলা বিল্ডিং এর কেয়ারটেকার হিসেবে কর্মরত আছি। কিছুদিন ধরেই আমার মালিকের স্ত্রীর সাথে তার পারিবারিক বিরোধ চলছে। গত ১৪ ডিসেম্বর বাড়ি ভাড়া উত্তোলনে জন্য গেলে আবুল খায়ের রনির শশুর মনির হোসেন ও তার স্ত্রী শামীমা পারভীন শিমু বারা উত্তোলনে বাধা প্রদান করে। এবিষয়টি আমি আবুল খায়ের রনিকে জানালে তিনি আমাকে বাড়ি ভাড়া উত্তোলনের জন্য বলেন। আমি তার কথামতো টাকা উত্তোলন করতে গেলে মনির হোসেন ও তার স্ত্রী আমাকে গালাগালি করতে থাকে। আমি তাদেরকে গালাগালি করতে বারণ করলে তারা আমাকে টেনে নিচে নিয়ে এসে মারধোর করতে শুরু করে। এক পর্যায়ে শামীমা পারভীন শিমু আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাকু দিয়ে আঘাত করে। এ সময় আমার ডাক চিৎকারে চতুর্থ তলা ফ্লাট এর ভাড়াটিয়ারা এগিয়ে এসে আমাকে উদ্ধার করে। পরবর্তীতে আমাকে ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। এবং যাওয়ার সময় আমাকে এ বাসা থেকে চলে না গেলে যে কোন সময় হত্যা করার হুমকি প্রদান করে। পরে আবুল খায়ের উনার সাথে কথা বলে তারা এসে তাদের বিরুদ্ধে মামলা ফতুল্লা মডেল থানায় দায়ের করি।

এ বিষয়ে আবুল খায়ের রনির জানান, আমরা স্ত্রীর সাথে পারিবারিক বিরোধ চলছে। এর জের ধরে আমার বাড়ির কেয়ারটেকার আব্দুর রাজ্জাককে বাড়ি ভাড়া উত্তোলন করতে আমার শ্বশুর ও আমার স্ত্রী বাধা দেয়। আমি তাকে বাড়ি ভাড়া উত্তোলন করতে বললে তারা আমার কেয়ারটেকারকে মারধরসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়। আমার স্ত্রী শামীমা পারভীন শিমু প্রতারণা করে আমার বসুন্ধরায় অবস্থিত ফ্লাট আত্মসাৎ করে নিয়েছে এই কারণেই তার সাথে আমার পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলছিল। এমনকি আমার পূর্ব শেয়ারচ্যাট লাল কা এলাকায় অবস্থিত চারতলা বিশিষ্ট ভবন তার নিজের নামে লিখে দেওয়ার জন্য বলে আমি তার নামে লিখে না দেওয়াই আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়েছে।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD