মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আড়াইহাজারে ট্রাক চাপায় পৌরসভার ইলেকট্রিশিয়ান নিহত আড়াইহাজারে ঘর থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ফতুল্লায় তিন বছরের শিশু অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতার ২ বন্দরে মিশু ডকইয়ার্ডের শ্রমিক নিহত ফতুল্লায় সৌদি প্রবাসীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক ও টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ আ: রহমানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশে মিছিল নিয়ে ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের যোগদান মিল্টন সমাদ্দারের সব অপকর্ম তদন্ত করে বের করা হবে, হারুন শ্রমিক-মালিক সুসম্পর্ক রেখে উৎপাদন বাড়ানোর আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর তৃতীয় শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, স্বীকারোক্তিতে রোমহর্ষক বর্ণনা ধর্ষকের অয়ন ওসমানের ছবি ব্যবহার করে কুতুবপুরে রায়হানের অপরাধ জগত

শিশু হত্যার দায়ে আবুল হোসেনের মৃত্যুদণ্ড

সংবাদ নারায়ণগঞ্জ:- মানিকগঞ্জের হরিরামপুরে শিশু হত্যার দায়ে মো. আবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন।

( ১৪ ফেব্রুয়ারি) মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মানিকগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জয়শ্রী সমদ্দার আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।একইসঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আবুল হোসেন হরিরামপুর উপজেলার সরফদিনগর গ্রামের হাসমত আলীর ছেলে।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি মো. আব্দুস সালাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, আসামি আবুল হোসেন একই গ্রামের বৃষ্টি আক্তারের বাবা রমজান আলী সঙ্গে দিনমজুরের কাজ করতেন। এ কারণে আবুল শিশু বৃষ্টিদের বাড়িতে আসা যাওয়া করতেন। কয়েকদিন যাওয়া আসার পর বৃষ্টিকে বিয়ের প্রস্তাব দেন আবুল। তার বয়স বেশি হওয়ায় এই প্রস্তাবে বৃষ্টির মা-বাবা রাজি না হয়ে আবুলকে তাদের বাড়িতে আসতে নিষেধ করেন। এ কারণে আবুল হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের হুমকি দেন। ২০১৭ সালের ৫ মে বৃষ্টির মা তার বাবার বাড়িতে যান এবং বৃষ্টির বাবা কাজে বের হন। এ সময় বৃষ্টিকে বাড়িতে একা পেয়ে আবুল হোসেন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার গলা কেটে পালিয়ে যান। এতে ঘটনাস্থলেই বৃষ্টি নিহত হয়।

এ ঘটনায় বৃষ্টির মা আকলিমা বেগম হরিরামপুর থানায় আবুল হোসেনকে আসামি করে হত্যা মামলা দয়ের করেন। পরে পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করে। ২০১৮ সালের ১০ জুলাই এসআই কোহিনুর মিয়া আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলার বিচারক ২০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণের মাধ্যমে এই রায় দেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন পিপি মো. আব্দুস সালাম এবং আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মতিয়ুর রহমান আঙ্গুঁর।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD