রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০৬:২৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

স্ত্রীর অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায়, গ্রেফতার স্বামী

সংবাদ নারায়ণগঞ্জ:- সাবেক স্ত্রীর দায়ের করা পর্নোগ্রাফি মামলার আসামি ইউসুফ আলীকে (৪০) গ্রেফতার করেছে আড়াইহাজার থানা পুলিশ।

(১৭ অক্টোবর) মঙ্গলবার সকালে দুপ্তারা ইউনিয়নের গিরদা চৌধুরী পাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ইউসুফ ওই এলাকার লতিফ খন্দকারের ছেলে।

(১৬ অক্টোবর) সোমবার রাতে মাহমুদ আক্তার বাদী হয়ে সাবেক স্বামী ইউসুফ আলীকে একমাত্র আসামি করে আড়াইহাজার থানায় ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, মামলার একমাত্র আসামি ও ভিকটিম স্বামী-স্ত্রী ছিলেন। ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে আড়াইহাজার উপজেলার দুপ্তারা ইউনিয়নের গিরদা চৌধুরী পাড়া এলাকার লতিফ খন্দকারের ছেলে মোহাম্মদ ইউসুফ আলীর সঙ্গে বিয়ে হয় নরসিংদী জেলার শিবপুর থানার ঘাশিরদিয়া মিয়া বাড়ি এলাকার মোহাম্মদ ফিরোজ মিয়ার মেয়ে মাহমুদা আক্তারের।

এরমধ্যে নয় বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। সন্তানের দিকে চেয়ে মাহমুদা সংসার ছেড়ে যাননি। এরমধ্যে গত চার বছর আগে বিদেশ চলে গেলে তার ও সন্তান ফাহিমের ভরণপোষণের কোনো খরচ দিতেন না ইউসুফ। ফোনে যোগাযোগ করলে উল্টো গালমন্দ করতেন।

বিদেশ থেকে ফিরে ইউসুফ স্ত্রীর ওপর নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেন। এ ব্যাপারে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানানো হলে সালিশ বৈঠকে সুরাহা না হলে গত বছরের ১১ নভেম্বর ইউসুফকে তালাক দেন স্ত্রী মাহমুদা আক্তার। তালাকের পর থেকে বিভিন্নভাবে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেন। একপর্যায়ে তাদের অন্তরঙ্গ সময়ের ধারণ করা ভিডিও ও ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব ও টিকটকে আপলোড করেন। এ ঘটনায় মাহমুদা পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ সাবেক স্বামী ইউসুফ আলীকে গ্রেফতার করে।

আড়াইহাজার থানার ওসি মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ জানান, আসামিকে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD