রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:১৩ অপরাহ্ন

আড়াইহাজারে বিয়ের সাতদিনের মাথায় নববধূর আত্মহত্যা

সংবাদ নারায়ণগঞ্জঃ- নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে নববধূর হাতে এখনো মেহেদীর টকটকে লাল রং। বিয়ের সাতদিনের মাথায় মুক্তা আক্তার (১৮) নামে এক নববধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। (২৩ অক্টোবর) শুক্রবার  দুপুরে উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের কল্যাণ বিলপাড় এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মুক্তা আক্তার ওই এলাকার মুক্তার হোসেনের মেয়ে এবং একই এলাকার আল-আমিনের স্ত্রী।

বৃহস্পতিবার তিনি স্বামীকে নিয়ে বাবার বাড়িতে এসে রাতে বিষ পান করেন বলে জানা গেছে। নববধূর রহস্যময় মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

জানা গেছে, গত শুক্রবার পারিবারিকভাবে মাহমুদপুর ইউপির কল্যান্দী বিলপাড় এলাকার প্রবাসী মো. সেলিম মিয়ার ছেলে আল আমিন এর সঙ্গে ফতেহপুর ইউপির কায়েমপুর এলাকার প্রবাসী মোক্তার হোসেনের মেয়ে মুক্তা আক্তারের বিয়ে হয়। তারা মামাতো ভাই-বোন। একে অপরকে পছন্দ করতেন।

 

এক সপ্তাহের দাম্পত্য সম্পর্ক সৃষ্টি হতে না হতেই নববধূর বিষ পানের ঘটনাটিকে রহস্যময় বলে দাবি করেছেন গ্রামবাসী। অথচ মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ নেই।

আড়াইহাজার থানার এসআই রিয়াজউদ্দিন জানায়, শুক্রবার সকালে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ঢাকায় নেয়ার পথে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন নববধূ মুক্তা আক্তার। মুক্তার মা রহিমা বেগম কারো বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করেননি।

মুক্তার মা জানান, মুক্তা তার স্বামী আল আমিনকে নিয়ে বৃহস্পতিবার শ্বশুর বাড়ি থেকে বেড়াতে আসে। সারাদিন তারা ছিল হাসি খুশি। স্বামীর সঙ্গে মুক্তা নানান খুনসুটিও করেছে। তাদের বিয়ে হয়েছে গত শুক্রবার। সবাই বলছেন ওরা সুখী দম্পতি। মামাতো ভাই-বোন হলেও ওরা একে অপরকে পছন্দ করতো। রাত ৮ টার দিকে মুক্তা বিষপান করে। মুক্তার স্বামী আলআমিন ঘরে ঢুকে এই অবস্থা দেখতে পেয়ে সবাইকে ডেকে আনে। মুক্তাকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সকালে ঢাকায় নেয়ার পথে মুক্তার মৃত্যু হয়।

আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে। এ বিষয়ে আপাতত অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখতে অধিকতর তদন্ত চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD