বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাদ্রাসার ছাত্রদের চুল কাটার ঘটনায় মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা বন্দরে ৯২ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ১ নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নের জন্য শামীম ওসমান সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পরিশ্রম করছেন, শাহ্ নিজাম বাংলাদেশের প্রথম পাতালরেল নির্মাণের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী খানপুরে পাওয়ার স্টেশনে অগ্নিকাণ্ড, বিদ্যুৎহীন অনেক এলাকা সিদ্ধিরগঞ্জে ২৫ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ৪ রূপগঞ্জে কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণ, ২ যুবকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ফতুল্লায় বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা, ২০ লাখ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট ফতুল্লায় ডোবা থেকে নবজাতকের মৃতদেহ উদ্ধার ভোট চোর সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করেই ঘরে ফিরবো, ইসহাক

আগামী কাল শ্রমিকনেতা পলাশের পিতা ইদ্রিস আলী মেম্বারের ২২ তম মৃত্যবার্ষিকী

সংবাদ নারায়ণগঞ্জঃ- আগামীকাল ২৫ অক্টোবর রোববার জাতীয় শ্রমিকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নবনির্বাচিত ১ নং সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউনাইটেড ফেডারেশন অব গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব কাউসার আহমাদ পলাশের পিতা দানবীর মরহুম ইদ্রিস আলী মেম্বারের ২২তম মৃত্যুবার্ষষিকী।
১৯৯৮ সালের আজকের এই দিনে তিনি সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে যান। দিবসটিকে সামনে রেখে পারিবারিক ভাবে দিনব্যাপী কোরান খতম, দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হবে। পাশাপাশি বিভিন্ন সংগঠন অনুরুপ অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে ক্ষণজন্মা এই মানুষটিকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে।

উল্লেখ্য, ক্ষণজন্মা এই মানুষটির জন্ম ১লা মে ১৯৩৯ সালে আলীগঞ্জের সম্ভ্রান্ত মুসলিম ধনাঢ্য পরিবারে পিতা শেখ আফসিন মাদবরের ঘরে। তারা ছিলেন দুই বোন, তিন ভাই। ভাইদের মধ্যে তিনি ছিলেন ছোট।শিক্ষাজীবনে তিনি ছিলেন অত্যন্ত মেধাবী। লেখাপড়া শুরু করেছিলেন নারায়ণগঞ্জ হাইস্কুলে আর শেষ করেছিলেন নারায়ণগঞ্জ তোলারাম কলেজে। তিনি স্বাধীনতার পর থেকে ১৯৮৮ সাল অবধি কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের একজন জনপ্রিয় মেম্বার ছিলেন। মেম্বার থাকাকালীন সময়ে যেকোনো সময় যেকোনো মুহুর্তে মানুষের সেবায় এগিয়ে যেতেন।

 

এলাকার মানুষ তাকে ইদ্রিস মেম্বার বলেই সম্বোধন করতো শ্রদ্ধা আর ভালবাসার সাথে। জীবদ্দশায় তিনি ছিলেন মানুষের সুখ-দুখের কাণ্ডারি । স্বাধীনতা উত্তর এই অঞ্চলে তেমন কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিলনা। এমনকি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার ক্ষেত্রে যে অর্থনৈতিক বিষয়টি ছিল সেটাও অনেকের পক্ষে জোগান দেওয়া সম্ভব ছিলনা। এ অঞ্চলের প্রতিটি ঘরে ঘরে শিক্ষার আলোকবর্তিকা জ্বেলে দয়ার মানসে সর্বপ্রথম এগিয়ে আসেন এই ক্ষণজন্মা মানুষটি।

স্বাধীনতা উত্তর পাগলা জুনিয়র হাইস্কুলকে তিনি তার আন্তরিক প্রচেষ্টায় জুনিয়র হাইস্কুলকে পূর্ণাংগ হাইস্কুলে রুপদান করেন। পাশাপাশি মর্গান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, আলীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের আজীবন দাতা সদস্য ছিলেন তিনি।আজ নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ সেটার প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে তার অবদান ছিল অনস্বীকার্য। এছাড়াও তিনি এলাকার রাস্তাঘাট , মসজিদ মাদ্রাসা,সহ বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কর্মকা্ন্ডে নিজেকে সপে দিয়েছিলেন। সুন্দর ও আলোকিত সমাজ গঠনের মাধ্যমে আমৃত্যু তিনি মানুষের কল্যানে নিবেদিত প্রাণ হয়ে কাজ করে গেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...


© 2022 Sangbadnarayanganj.com - All rights reserved
Design & Developed by POPULAR HOST BD